খেলাধুলা

ইউরোপা লিগের রোমাঞ্চকর জয়ে চ্যাম্পিয়ন সেভিয়া

রোমেলু লুকাকুর দৃঢ়তায় ম্যাচের শুরুতেই এগিয়ে যায় ইন্টার মিলান। কিন্তু শেষ দিকে তিনিই হয়ে যান খলনায়ক। তাঁর আত্মঘাতী গোলে স্বপ্ন ভাঙে ইতালিয়ান ক্লাবটির। এমন রোমাঞ্চকর জয়ে ইউরোপা লিগের চ্যাম্পিয়ন হয়েছে সেভিয়া। শুরুতে পিছিয়ে পড়েও ইউরোপা লিগের শিরোপা ঘরে তুলে নিল সেভিয়া।

শুক্রবার রাতে অনুষ্ঠিত ম্যাচে ৩-২ গোলে জিতেছে সেভিয়া। ইউরোপীয় ক্লাব ফুটবলে দ্বিতীয় সেরা প্রতিযোগিতার এটি তাদের ষষ্ঠ শিরোপা। জয়ী ম্যাচে জোড়া গোল করেন লুক ডি ইয়ং। ইন্টারের হয়ে গোল দুটি করেন রোমেলু লুকাকু ও দিয়েগো গদিন।

ম্যাচের পঞ্চম মিনিটেই এগিয়ে যায় ইন্টার মিলান। সফল স্পট কিকে ইউরোপা লিগে টানা একাদশ ম্যাচে জালের দেখা পান লুকাকু। চলতি মৌসুমে সব মিলিয়ে লুকাকুর এটি ৩৪তম গোল। ক্রিস্টিয়ানো রোনালদোর পর ইউরোপীয় প্রতিযোগিতার নকআউট পর্বে টানা ছয় ম্যাচে গোল পেলেন তিনি।

তবে এগিয়ে যাওয়ার সুফল বেশিক্ষণ ধরে রাখতে পারেনি ইন্টার। ম্যাচের ১২ মিনিটে সমতায় ফেরে সেভিয়া। নাভাসের চমৎকার ফ্রি-কিকে দারুণ হেডে ঠিকানা খুঁজে নেন লুক ডি ইয়ং।

৩৩ মিনিটে আবারো জালের দেখা পান ডি ইয়ং। এভার বানেগার বাড়ানো বল ধরে হেডেই সেভিয়াকে এগিয়ে নেন এই ডাচ স্ট্রাইকার। তারাও ব্যবধান ধরে রাখতে পারেনি। দুই মিনিট বাদে সমতায় ফেরে ইন্টার। ব্রজভিচের ফ্রি-কিকে জাল খুঁজে নেন দিয়েগো গদিন।

এরপরই ম্যাচ জমে ওঠে। আক্রমণ-পাল্টা আক্রমণে দুদলই এগিয়ে যাওয়ার চেষ্টা করে। কিন্তু শেষ পর্যন্ত ইন্টারের দুঃস্বপ্ন হয়ে ওঠেন লুকাকু। ৭৪তম মিনিটে সেই গোলের ত্রাতা ছিলেন কার্লোস। ব্রাজিলিয়ান ডিফেন্ডারের বাইসাইকেল কিক ঠেকাতে গিয়ে উল্টো বল নিজেদের জালে পাঠিয়ে দেন লুকাকু। এরপর আর গোলের দেখা না পেলে হার নিয়েই মাঠ ছাড়তে হয় ইন্টারকে। আর রেকর্ড শিরোপা জিতে উল্লাসে মেতে ওঠে সেভিয়া। লিগটিতে আগে থেকেই ইউরোপা লিগে শিরোপা জয়ের রেকর্ড ছিল সেভিয়ার। এবার ষষ্ঠ শিরোপা জিতে নিজেদের রেকর্ডকে আরো শক্ত করে নিল দলটি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *