সারাদেশে

পাবনা-৪ আসনে উপ-নির্বাচন আ’লীগ, বিএনপি ও জাপা’র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র জমা

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘোরিয়া) উপ-নির্বাচনকে ঘিরে উৎসব মুখোর পরিবেশ তৈরি হয়েছে রাজনীতির মাঠ। সকল জল্পনা কল্পনার অবসান ঘোটিয়ে গত ২৭ আগস্ট দলীয় নৌকার প্রার্থী হিসাবে মনোনিত হন ঈশ্বরদী উপজেলা চেয়ারম্যান ও জেলা আ.লীগের সহ-সভাপতি নুরুজ্জামান বিশ্বাস। এই উপ-নির্বাচনে সাবেক ভুমিমন্ত্রী শরিফ পরিবারের ছয়জনসহ দলীয় মেনানয় প্রত্যাশী ছিলেন ২৮ জন। এই নির্বাচনে অংশগ্রহনের জন্য আ’লীগ. বিএনপি ও জাপাসহ তিনজন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে। মনোনয়নপত্র জমাদানের শেষদিনে ২ সেপ্টাম্বর বুধবার বিকেলে প্রার্থীরা তাদের দলীয় নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নিয়ে মননোনয়নপত্র জমা দেন। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে জমাকৃত মনোনয়ন পত্র যাচাই বাছাই করে যোগ্য প্রার্থীদের নাম ঘোষনা করবেন জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা। আগামী ৮ সেপ্টম্বর এই উপ-নির্বাচনে প্রার্থীতা প্রত্যাহারের শেষ দিন। আর ভোট গ্রহন হবে আগামী ২৬ সেপ্টম্বর।

চলতি বছরের ২ এপ্রিল সাবেক ভূমিমন্ত্রী শামসুর রহমান শরীফ ডিলুর মৃত্যুতে আসনটি শূন্য হয়। গুরুত্বপূর্ন এই আসটিকে পুনরুদ্ধার করা জন্য সুষ্ঠু নির্বাচন প্রত্যাশা করেন বিএনপি ও জাপার প্রার্থী। তবে এই আসটি নিজেদের করতে মাঠের নেতা কর্মীদের নিয়ে মাঠে কাজ করছেন আ.লীগ।

আ.লীগ মনোনীত নৌকার প্রার্থী নুরুজ্জামান বিশ্বাস বলেন, শেখ হাসিনা আমাদের দল প্রধান আমাকে দলীয় প্রার্থী হিসাবে মনোনীত করেছেন। এই আসনে প্রয়াত ভূমিমন্ত্রী চারবার নৌকা প্রতিক নিয়ে বিজয়ী হয়েছেন। এই আসনটি অনেক গুরুত্বপূর্ন আসন। আমরা আমাদের দলীয় প্রধানকে পাবনা-ঈশ্বরদী আসনটি উপহার দিতে চাই।

বিএনপি মনোনীত প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব বলেন, ৩ শে ডিসেম্বরের মত নির্বাচন অনুষ্ঠিত না হলে এই আসনটি বিএনপি বিজয়ী হবে। সরকারসহ নির্বাচন কমিশনের কাছে আমাদের একটাই চাওয়া অন্ততত এই একটি আসনে সুষ্টু নির্বাচন করে জনগনের আস্থা ফিরিয়ে আনুন। সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিজয় আমাদের নিশ্চিত।

জাতীয় পার্টির প্রার্থী রেজাউল করিম বলেন, দলীয় সিদ্ধান্ত মোতাবেক আমরা এই নির্বাচনে অংশ গ্রহণ করছি। নির্বাচনের পরিবেশ ভালো থাকলে এই নির্বাচনে ভালো ফলাফল  করবে জাপা। শেষ মুহুর্ত পর্যন্ত নির্বাচনে লড়তে চাই।

নির্বাচন নিয়ে জেলা রিটানিং কর্মকর্তা আব্দুল লতিফ শেখ বলেন, নির্বাচনকে নিয়ে আমাদের সকল ধরনরে প্রস্তুতি সম্পর্ন হয়েছে। নিয়ম অনুযায়ী নির্বাচনের সকল কাজ এগিয়ে নেয়া হচ্ছে। সকলের জন্য আইন সমান থাকবে। আচারন বিধি অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনহত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে। আশা করছি অবাদ নিরপেক্ষ সুষ্ঠু নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে এই নির্বাচনে।

পাবনা-৪ (ঈশ্বরদী-আটঘোরিয়া) উপজেলার দুটি পৌরসভা ১২টি ইউনিয়নের মোট ভোট কেন্দ্র রয়েছে ১২৯টি। মোট ভোটার ৩লক্ষ ৮১ হাজার ১শো ১২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ১,৯১,৬৯৭ জন আর নারী ভোটার ১,৮৯,৪১৫জন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *